Header Border

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (হেমন্তকাল) ২৩.৯৬°সে

নারকেল দুধে হাঁস ভুনা

শীত মানেই উৎসব, দাওয়াত আর খাওয়া-দাওয়া। শীতকালের ভোজন আয়োজন হাঁস ছাড়া যেন অসম্পূর্ণ। চালের রুটি কিংবা চিতই পিঠা হাঁসের মাংস জমে যায় সব কিছুর সঙ্গে। হাঁস খেতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিলই বটে।

হাঁস ভুনা, ঝোল-ঝাল নানাভাবে রান্না করে খাওয়া যায়। নারকেল দুধ দিয়ে হাঁসের মাংস ভুনা খেতে খুবই সুস্বাদু। সকালের নাস্তায় কিংবা শীতের রাতের পিকনিক যে কোনোটাই একেবারে জমে যাবে গরম গরম চিতই পিঠার সঙ্গে হাঁসের এই পদটি। জেনে নিন রেসিপি-

উপকরণ
১. হাঁসের মাংস ১ কেজি
২. আদা বাটা ২ টেবিল চামচ
৩. রসুন বাটা ১ চা চামচ
৪. পেঁয়াজ বাটা ১/৪ কাপ
৫. পেঁয়াজ কুচি ১/৪ কাপ
৬. জিরা বাটা ১ চা চামচ
৭. হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ
৮. মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ
৯. ধনে গুঁড়া ১ চা চামচ
১০. ছোট এলাচ ২টি
১১. দারচিনি ২ ইঞ্চি
১২. তেজপাতা ২টি
১৩. নারকেল দুধ ২ কাপ
১৪. গরম মশলা গুঁড়া ১ চা চামচ
১৫. কাঁচালঙ্কা ৫-৬ টি
১৬. লবণ স্বাদমতো
১৭. তেল পরিমাণমতো

পদ্ধতি
প্রথমে হাঁস ভালো ভাবে পরিষ্কার করে কেটে নিন। কড়াইতে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি ভাজুন। এবার আদা, রসুন, জিরা বাটা দিয়ে ভালো করে কষাতে থাকুন। সামান্য পানি দিয়ে গুঁড়া মসলাগুলো মিশিয়ে কষান আরও কিছুক্ষণ। মসলার কাঁচা গন্ধ গিয়ে তেল উপরে উঠে এলে মাংস দিন। আবারো কষানোর পালা।

ভালোভাবে মসলার সঙ্গে মাংস কষিয়ে নিয়ে নারকেল দুধ আর কিছুটা পানি দিন। হালকা আঁচে ঢেকে মাংস রান্না করুন। সেদ্ধ হয়ে ঝোল মাখা মাখা হয়ে এলে কাঁচা মরিচ চেরা, গরম মশলা গুঁড়া, ধনেপাতা দিয়ে নামিয়ে নিন। গরম গরম উপভোগ করুন চালের রুটি, পরোটা, কালাই রুটি কিংবা চিতই পিঠার সঙ্গে ৷

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

ওমিক্রন মোকাবিলায় যা যা খাওয়া জরুরি
বিছানায় থাকা যে পোকার কামড়ে হতে পারে অ্যালার্জি
ওজন কমাতে সন্ধ্যার পরে যে ৫ কাজ ভুলেও করবেন না
খাওয়ার পর গোসল করলে কী হয়?
শারীরিক সম্পর্ক ছাড়াও যে কারণে হতে পারে এইডস
ভাজা নাকি কাঁচা বাদাম কোনটি শরীরের জন্য ভালো?

আরও খবর